টেক বিশ্ব

জানার উপায় ফেসবুকের সব কিছু ভালো নয় কেন।

জানার উপায় ফেসবুকের সব কিছু ভালো নয় কেন।

ফেসবুকের সবকিছু ভালো? না ফেসবুকের সবকিছু ভালো নয়। ফেসবুক কর্তৃপক্ষও তা স্বীকার করে। সম্প্রতি ফেসবুকের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা শেরিল স্যান্ডবার্গ স্বীকার করেছেন তা। তিনি বলেছেন, ফেসবুকের সব কথাবার্তা সবার জন্য ভালো নয়।

এ মন্তব্যের কয়েক মাস আগেও ফেসবুকের কিছু কুফলের কথা স্বীকার করেছিল কর্তৃপক্ষ। তখন বলেছিল, ফেসবুকের পোস্টগুলোতে উদ্দেশ্যহীনভাবে ঘোরাফেরা করলে মানসিক অবস্থা খারাপ হতে শুরু করে থাকে।
শেরিল বলেছেন, ফেসবুক নিউজ ফিডে পরিবর্তন এনেছে। এখন যাদের সঙ্গে ফেসবুকে বেশি যোগাযোগ হয়, তাদের পোস্ট নিউজ ফিডে বেশি দেখানো হচ্ছে। গবেষণায় দেখা গেছে, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ব্যবহারের কিছু ধরন মানুষের মধ্যে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। এটা জানার পর ফেসবুকে পরিবর্তন আনা হয়েছে। ভ্যারাইটি ডটকমে এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। ‘মর্গান স্ট্যানলি’স ২০১৮ টেকনোলজি, মিডিয়া অ্যান্ড টেলিকম’ শীর্ষক সম্মেলনে গত বুধবার অংশ নেন শেরিল। তিনি বলেন, গবেষণায় পাওয়া গেছে, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সব ধরনের যোগাযোগ সবার জন্য মানসিক দিক থেকে ভালো নয়। সামাজিক যোগাযোগের ভালো ও মন্দ দুটি দিকই আছে। গবেষণা অনুযায়ী, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম কীভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে, তার ওপর এটি নির্ভর করে।
এ বছরের জানুয়ারি মাসে অ্যালগরিদমে পরিবর্তন আনে ফেসবুক। থার্ডপার্টি প্রকাশকদের কনটেন্টের পরিবর্তে পরিবার ও বন্ধুদের প্রিয় কনটেন্টগুলো নিউজফিডে দেখাতে শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনে ভুয়া খবর ছড়ানো ঠেকাতে ব্যর্থ হওয়া ও রাশিয়ার কাছে বিজ্ঞাপন বিক্রি সম্পর্কিত বিষয়ে সমালোচনার মুখে পড়ে প্রতিষ্ঠানটি। স্যান্ডবার্গ বলেছেন, ভুয়া খবর ঠেকাতে এবং এ প্ল্যাটফর্মটিকে বাজে কাজে লাগাতে যারা চেষ্টা করে, তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছে ফেসবুক। শেরিল স্বীকার করেন, ২০১৭ সালটি ফেসবুকের জন্য চ্যালেঞ্জের একটি বছর গেছে। ২০১৮ সালটিও এ রকম যাবে

Related Post





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*