জীবনযাপন

হাত-পা Hat Pa Besi Gamar Karon Ki? Janar Upay

ফাল্গুনের এই মৌসুমে শরীর কিংবা হাত-পা ঘামবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রেই তা চলে যায় বিরক্তির পর্যায়ে। অফিসের ডেস্কে মাউসটা ধরে আছেন আর অমনি হাত ঘেমে যাচ্ছে। তখন তো এই ঝামেলা থেকে নিস্তার পেতে কিছু একটা করতেই হয়।

Hat Pa Besi Gamar Karon Ki

সাধারণত আমাদের হাতের তালু এবং পায়ের পাতায় শরীরের অন্যান্য অংশের চেয়ে ‘সোয়েট গ্ল্যান্ড’ বা ঘর্মগ্রন্থি বেশি থাকে। আর বিভিন্ন কারণ তো রয়েছেই। এর মধ্যে অন্যতম হল আপনার শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি। আর এটিও হতে পারে বেশ কয়েকটি কারণে। যেমন, অতিরিক্ত উত্তেজনা, উদ্বেগ, শারীরিক পরিশ্রম, উষ্ণ আবহাওয়া। এমনকি আপনি যদি অতিরিক্ত ঝাল খাবার খান তাতেও কিন্তু হাত-পা ঘামার প্রবণতা দেখা দিতে পারে। আর চিকিৎসা বিজ্ঞানে এই সমস্যাকে চিহ্নিত করা হয় ‘পালমার হাইপারহাইড্রোসিস’ (হাতের তালু ঘামলে) এবং ‘প্ল্যানটার হাইপারহাইড্রোসিস’ (পায়ের তালুর ক্ষেত্রে)।
এছাড়াও নারীদের মেনোপজের সময় এবং দীর্ঘদিন কোনও ওষুধ সেবনেও এই সমস্যা দেখা দিতে পারে।
কীভাবে নিস্তার পাবেন?

অ্যালুমিনিয়াম ক্লোরাইডযুক্ত লোশন, হ্যান্ড ওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন।
অতিরিক্ত ঝাল এবং ক্যাফেইনযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন।
দীর্ঘদিন কোনও ওষুধ সেবন করলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
গোসলে গরম পানির পরিবর্তে ঠাণ্ডা পানি ব্যবহার করুন।
হাত-পা বেশি ঘেমে গেলে বাতাসে শুকিয়ে পাউডার দিয়ে রাখতে পারেন। এতে চিটচিটে ভাব দূর হবে।
অফিসে কিংবা ক্লাসে যেখানেই থাকুন না কেন, কিছুটা সময় জুতো জোড়া খুলে রাখুন।
পায়ের ক্ষেত্রে আরামদায়ক জুতা, এবং পাতলা মোজা ব্যবহার করুন।
অবসরে ইয়োগা বা মেডিটেশন করলেও ফল পাওয়া যাবে।
কিছু সময় পর পর হাত এবং পা ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে নিতে পারেন। এতে শরীরের তাপমাত্রা অনেকটাই কমে আসে।

Hat Pa Ghamar Osud; Hat Pa Gamar চিকিৎসা;
Hat Pa Gamar Karon O Protikar; Hat Pa Besi Gama Bondher Upay ki; Hat Pa Gamar Somadan; Hat Pa Gamle ki Kora Jay; Otirikto Gham Ber Howyar Karon ki; Gorome Gam theke Muktir Upay; Pa ঘামা থেকে Muktir Upay

Related Post





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*