জমি বন্ধক নামা চুক্তিপত্র লেখার নিয়ম

জমি বন্ধক নামা চুক্তিপত্র লেখার নিয়ম

জমি বন্ধক নামা চুক্তিপত্র লেখার নিয়ম

জমি গ্রহিতাঃ

মোঃ খোকন মিয়া, পিতাঃ মৃত রহমান সেখ , মাতাঃ মনোয়ারা বেগম, সাং- সিংড়াবাড়ি ,পোস্টঃ পূর্ববেতগাড়ী, উপজেলাঃ কাজিপুর, জেলাঃ সিরাজগঞ্জ।

জমি দাতাঃ

মোঃ বেল্লাল হুসাইন, পিতাঃ মৃত কালু মিয়া, মাতাঃ ফজিলা খাতুন, গ্রাম- বিয়াড়া,পোস্টঃ বিয়াড়া, উপজেলাঃ কাজিপুর, জেলাঃ সিরাজগঞ্জ।

আমার পারিবারিক খরচ নির্বাহ জন্য নগদ টাকার বিশেষ প্রয়োজন হওয়ায় তপশীলোক্ত ২০(বিশ) শতক অর্থাৎ ৬০(ষাট) ১৯/১১/২০২০ (হাজার) টাকা নগদ গ্রহণ করিলাম। নির্ধারিত সময় পর্যন্ত আপনি গ্রহীতা নিম্নবর্ণিত তপশীলোক্ত জমি ভোগ দখলে থাকিবেন। মেয়াদ পূর্ণ হইলে আপনার প্রদত্ত সমুদয় টাকা আপনার বরাবরে ফেরত প্রদান পূর্বক জমি বন্ধক মুক্ত করিতে বাধ্য থাকিব। উল্লেখ্য যে, মেয়াদের পরও আপনার আসল টাকা ফেরত না দেওয়া পর্যন্ত জমি আপনার ভোগ দখলে স্থিত থাকিবে। আপনার আসল টাকা ফেরত দেওয়ার পর জমি বন্ধক মুক্ত হইবে। বন্ধককৃত জমি আপনি গ্রহিতা ব্যতিত অন্য কাহাকেও কোন প্রকার বন্ধক, হেবা, দান, বা হস্থান্তর করি নাই। যদি আপনার ভোগ দখলে কোন প্রকার বাধা বিঘ্ন সৃষ্টি করি বা করাই আপনার ভোগ দখলে কোন প্রকার সমস্যা হইলে আসল টাকা ফেরত সহ দ্বীগুন ক্ষতিপূরণ দিতে এবং শঠামীর দায়ে আইন আদালতে শাস্তিভোগ করিতে বাধ্য থাকিব। আমার সম্পাদিত অত্র বন্ধকনামা সর্বাদালতে গ্রহণযোগ্য ও বলবৎ হইবে।

জমি বন্ধক নামা লেখার নিয়ম,জমি বন্ধক নামা,বন্ধক নামা লেখার নিয়ম

Related posts