ডিজিটাল ব্যালেন্সের সুবিধা।

ডিজিটাল ব্যালেন্সের সুবিধা।

রসায়ন পরীক্ষাগারে বস্তুর ওজন পরিমাপ করার জন্য সাধারন ও ডিজিটাল ব্যালেন্স ব্যবহার করা হয়।
ডিজিটাল ব্যালেন্সের সুবিধাগুলি নিম্নরুপঃ
১. সাধারণ ব্যালেন্স অপেক্ষা ডিজিটাল ব্যালেন্সে বস্তুর ওজন পরিমাপ করতে কম সময়ের প্রয়োজন হয়।
২. সাধারণ ব্যালেন্স অপেক্ষা ডিজিটাল ব্যালেন্সে অনেক বেশি সূক্ষ্ম পরিমাপ করা যায়।
৩. মাইক্রো বিশ্লেষণ পদ্ধতিতে ডিজিটাল ব্যালেন্স ব্যবহার করা হয়।
৪. ডিজিটাল ব্যালেন্সে ব্যক্তিগত ভুলের সম্ভাবনা কম থাকে।
৫. এই ব্যালেন্সের মাধ্যমে 0.0001g পরিমাণ বস্তুর ওজন সহজেই নির্ণয় করা যায়।
৬. ডিজিটাল ব্যালেন্স দ্বারা বস্তুর ওজন পরিমাপ করার জন্য বাটখারার কোন প্রয়োজন হয় না।
৭. রাইডার বা রাইডার বাহকের কোনো প্রয়োজন হয় না।

Related posts