ব্যতিচার কাকে বলে? ব্যতিচারের শর্ত কি?

ব্যতিচার কাকে বলে? ব্যতিচারের শর্ত কি?

দুটি সুসঙ্গত উৎস থেকে নিঃসৃত দুটি আলোক তরঙ্গের উপরিপাতনের ফলে কোনো বিন্দুর আলোক তীব্রতা বৃদ্ধি পায় আবার কোনো বিন্দুর তীব্রতা হ্রাস পায়। এর ফলে কোনো তলে পর্যায়ক্রমে আলোকোজ্জ্বল ও অন্ধকার অবস্থার সৃষ্টি হয়। কোনো স্থানে বিন্দু থেকে বিন্দুতে আলোর তীব্রতার এই পর্যায়ক্রমিক তারতম্যকে আলোর ব্যতিচার বলে।

ব্যতিচারের শর্ত
ব্যতিচারের শর্তগুলো নিচে তুলে ধরা হলো–
  1. আলোর উৎস দু’টি সুসঙ্গত হতে হবে।
  2. যে দুটি তরঙ্গের ব্যতিচার ঘটবে তাদের বিস্তার সমান বা প্রায় সমান হতে হবে।
  3. উৎসগুলো খুব কাছাকাছি অবস্থিত হতে হবে।
  4. উৎসগুলো খুব সূক্ষ্ম হতে হবে।
  5. চিড়ের ব্যাস ব্যবহৃত আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য অপেক্ষা কম হতে হবে।

ফার্মাটের নীতি কি?

Related posts

Leave a Comment