হ্যাকিং (Security hacker) কি?

হ্যাকিং (Security hacker) কি?

হ্যাকিং বলতে বোঝায় তথ্য বা ফাইল চুরি বা পরিবর্তন করার জন্য একটি নেটওয়ার্কে প্রবেশ করা বা কম্পিউটারে অননুমোদিত প্রবেশাধিকার।
এই প্রক্রিয়ায় জড়িত ব্যক্তিকে হ্যাকার বলা হয়। কম্পিউটার হ্যাকিং রুটকিট, ট্রোজান, কীলগার ইত্যাদি বিভিন্ন ধরণের প্রোগ্রাম ব্যবহার করে করা হয়।
হ্যাকাররা ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত বা আর্থিক ডীটেইলগুলি ধরতে ব্রাউজার হাইজ্যাক, স্পুফিং, ফিশিং ইত্যাদি কৌশলগুলিও কাজে লাগায়।

কিভাবে জানবেন আপনার কম্পিউটার হ্যাক করা হয়েছে?
আপনার কম্পিউটার ভুয়া অ্যান্টিভাইরাস সতর্কবার্তা, অবাঞ্ছিত ব্রাউজার টুলবার, অদ্ভুত ওয়েবসাইটগুলির রিডিরেকশন,
অনাকাঙ্ক্ষিত পপ আপ, রান্সমওয়্যার বার্তা ইত্যাদি হ্যাক হওয়ার লক্ষণগুলি দেখাতে পারে।
আপনি যদি এই লক্ষণগুলি পান তবে আপনি দুঃখজনকভাবে নিশ্চিত থাকতে পারেন যে আপনার যে কম্পিউটারটি আছে তা হ্যাক করা হয়েছে।

মানব ভূগোল কাকে বলে?

হ্যাকিং প্রতিরোধ করবেন কিভাবে?

আপনার সিস্টেম / নেটওয়ার্কে এই অননুমোদিত অনুপ্রবেশকে প্রতিরোধ করার জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু মৌলিক সুরক্ষা নির্দেশিকা অনুসরণ করতে হবে:
— অনুমোদিত ওয়েবসাইট থেকে সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন
— আপনি যদি কোনও গানের ফাইল, ভিডিও বা একটি ইউটিলিটি সফ্টওয়্যার ডাউনলোড করতে চান তবে এটি একটি বিশ্বস্ত ওয়েবসাইট থেকে করুন। অনেক ওয়েবসাইট নির্দিষ্ট উচ্চ-মানের সফটওয়্যারের বিনামূল্যে ডাউনলোড অফার করে তবে সেগুলোও আপনার পিসির তথ্য পাওয়ার জন্য হ্যাকার দ্বারা তৈরি ভাইরাস বা স্পাইওয়্যার বহন করতে পারে।
–র্যান্ডম ইমেইল এটাচমেন্টে কখনোই ক্লিক করবেন না।
–হ্যাকারদের ম্যালওয়্যার ছড়িয়ে দেয়ার সবচেয়ে বড় মাধ্যমগুলোর মধ্যে একটি হলো ইমেইল। স্পাইওয়্যার বা ভাইরাস এসব ইমেইলের সাথে এটাচমেন্টে বা লিংকে লুকানো থাকে যা ক্লিক করলেই ভাইরাস ছড়াতে শুরু করে। অতএব, যে কোনও বিশ্বস্ত উৎস থেকে না থাকলে র্যান্ডম এটাচমেন্টগুলিতে কখনোই ক্লিক করবেন না।
— রান করার আগে সব ধরনের হার্ড ড্রাইভ স্ক্যান করুন।
পেন ড্রাইভ, বহিরাগত হার্ড ডিস্ক বা মোবাইল ডিভাইসগুলির মত হার্ড ড্রাইভগুলো থেকে কোনো ধরণের ম্যালওয়ার অপসারণ করতে একটি USB স্ক্যানার দ্বারা এগুলো স্ক্যান করা উচিত।

— সহজ পাসওয়ার্ড রাখা থেকে বিরত থাকুন

সহজ পাসওয়ার্ড যেমন- আপনার নামের পরে ১২৩৪, আপনার ডাকনাম বা নাম এবং জন্ম তারিখ ইত্যাদি পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করবেন না।
এই তথ্যটি সহজেই অনুমান করা যেতে পারে বা সোশ্যাল মিডিয়া সাইটগুলি থেকে আনা যেতে পারে, সুতরাং সেরা পাসওয়ার্ড পরিচালনা অনুশীলন অনুসরণ করুন। বিশেষ অক্ষরের সমন্বয় সহ আপনার অ্যাকাউন্টগুলির জন্য আপনাকে আলফা-নিউমেরিক পাসওয়ার্ড রাখতে হবে।
–আপনার লগইন তথ্য স্টোর বা শেয়ার করবেন না

আপনার পিসিতে ব্যবহারকারী আইডি রাখা, পাসওয়ার্ড স্টোর করা হ্যাকারদের শিকার হওয়ার ঝুঁকি বাড়ায়। সর্বদা আপনার লগইন তথ্য মনে রাখার চেষ্টা করুন। ইমেলের মাধ্যমে আপনার পাসওয়ার্ড শেয়ার করা থেকে বিরত থাকাও গুরুত্বপূর্ণ।

একটি এন্টি হ্যাকিং সফ্টওয়্যার গুরুত্ব

এন্টি-হ্যাকিং সফ্টওয়্যার কম্পিউটার অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার হিসাবেও পরিচিত, যা প্রতিটি পিসির জন্য অবশ্যই থাকতে হবে। এন্টি হ্যাকিং সফটওয়্যারটি ভাইরাস, স্পাইওয়্যার এবং অন্যান্য ম্যালওয়্যার অনুপ্রবেশ সনাক্ত করে এবং সরিয়ে ফেলার মাধ্যমে এই সাইবার আক্রমণগুলি থেকে একটি পিসি রক্ষা করে। অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যারটির সর্বশেষ আপডেট রাখা উচিত যাতে কোনও ধরণের নতুন হুমকি সনাক্ত করা যায়।

রিভ অ্যান্টিভাইরাস সফ্টওয়্যারটি হ্যাকারদের থেকে আপনার কম্পিউটারের ডেটার সুরক্ষা দেয়,তাই ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য রিভ এন্টিভাইরাস ই আদর্শ।

Related posts

Leave a Comment