বিনিময় রেজিস্ট্রেশন করুন বিকাশ ও রকেট একাউন্ট এ খুব সহজেই বিস্তারিত পোস্ট এ.!

বাংলাদেশে যখন থেকে মোবাইল ব্যাংকিং চালু হওয়ার তখন থেকে বেশ ও ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশের ব্যাংক একাউন্ট গুলোতে এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে টাকা পাঠানো যাই কিন্তু মোবাইল ব্যাংকিং গুলোতে এক মোবাইল ব্যাংকিং থেকে অন্য মোবাইল ব্যাংকিং এ টাকা পাঠানো যাই না..! এই কারণে মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহকদের একের অধিক মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্ট চালু রাখতে হতো এবং নির্দিষ্ট মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট পয়েন্ট থেকে টাকা লেনদেন করতে হয়।

এখন এই ভোগান্তি দিন শেষ এখন খুব সহজেই এক মোবাইল ব্যাংকিং থেকে অন্য মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট এ টাকা পাঠাতে পারবেন যেমনঃ বিকাশ টূ রকেট, রকেট টু বিকাশ এবং সাথে আরো অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট এ আর এই সিবা টি নাম হচ্ছেঃ বিনিময়

চলুন আগে জেনে নিয়া যাক বিনিময় টা কি.?

মোবাইলে আর্থিক সেবাদাতা কোম্পানিগুলোর মধ্যে আন্তঃলেনদেনের পাশাপাশি ব্যাংক হিসাবে সহজে টাকা পাঠানোর নতুন সেবা নাম হচ্ছে বিনিময়। মোবাইল ব্যাংকিং হিসেবে পরিচিত মোবাইলে আর্থিক সেবা (এমএফএস) কোম্পানিগুলোর একটির সঙ্গে আরেকটির পারস্পরিক লেনদেন করা যাবে। অর্থাৎ বিকাশ থেকে রকেট, এম ক্যাশ এর মধ্যে যেমন লেনদেন করা যাবে তেমনি ব্যাংক হিসাবে আরও সহজে অর্থ স্থানান্তর করা যাবে।

বিনিময়’ প্ল্যাটফর্মে একটি আইডি খুলে এমএফএস, ব্যাংক ও পিএসপি হিসাবে সহজেই লেনদেন করা যাবে; পৃথকভাবে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট লেখার দরকার পড়বে না। পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন পরিষেবার ফি ও বিল পরিশোধ করা যাবে

প্রাথমিকভাবে ১১টি ব্যাংক, এমএফএস ও পিএসপি আন্তঃলেনদেন সংযুক্ত হবে এরমধ্যে আট ব্যাংক হল- রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, বেসরকারি ব্র্যাক, ইস্টার্ন, মিউচুয়াল ট্রাস্ট, পূবালী, আল-আরাফাহ ইসলামী, ইউসিবি ও মিডল্যান্ড ব্যাংক।

তিন এমএফএস কোম্পানি- বিকাশ, ডাচ্‌-বাংলা ব্যাংকের রকেট ও ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের এম ক্যাশ।

বিনিময় চালু করতে হবে কি ভাবে.?

বিনিময় এর মাধ্যমে অর্থ লেনদেন করতে বিনিময় প্ল্যাটফর্মে একটি হিসাব খুলতে হবে গ্রাহককে। আগে থেকেই অনুমোদিত এমএফএস, ব্যাংক ও পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার (পিএসপি) এতে যুক্ত থাকবে।

গ্রাহক হিসাব খোলার পর তার একটি গ্রাহক পরিচিতি নাম বা আইডি তৈরি হবে। তাহলেই তিনি ‘বিনিময়’ এর মাধ্যমে তার সংশ্লিষ্ট এমএফএস বা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে অর্থ লেনদেনের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবেন।

আবার যে গ্রাহককে অর্থ পাঠাবেন তারও বিনিময় সেবায় হিসাব থাকতে হবে। যার কাছে টাকা পাঠানো হবে প্রেরকের পক্ষ থেকে শুধু আইডি লিখলেই হবে। অর্থ স্থানান্তরের ক্ষেত্রে কোনো হিসাব নাম্বার বা কোনো পরিচিতি সংক্রান্ত অতিরিক্ত তথ্য দেওয়া লাগবে না।

বিকাশ ও রকেট একাউন্ট এ বিনিময় সেবা চালু করুন.!

যেভাবে বিকাশ অ্যাপ থেকে বিনিময়-এ রেজিস্ট্রেশন করবেনঃ

 

 

যেভাবে রকেট অ্যাপ থেকে বিনিময়-এ রেজিস্ট্রেশন করবেনঃ

রকেট অ্যাপ এ ঢুকে বিনিময় অপশন সিলেষ্ট করুন।

তার পর এখানে কম বেশি সব তথ্য দিয়াই থাকবে

১. নাম্বার এ আপনার জি-মেইল অ্যাকাউন্ট প্রদান করুন
২. নাম্বার বিনিময় এ লেনদেন এর জন্য ইউজার আইডি লিখুন (যেমনঃ Janarupay2020)
৩. নাম্বার এ আপনার ফার্স্ট নাম বা লাস্ট নাম প্রদান করুন

চিহ্নিত স্থান গুলোতে Yes দিয়ে দিন এবং Submit এ ক্লিক করুন।

বিনিময় এ লেনদেন এর জন্য ৬ সংখ্যা একটি পিন প্রদান করুন এবং Submit এ ক্লিক করুন।

আপনার রকেট একাউন্ট এ একটি ওটিপি কোড যাবে তা এখানে প্রদান করুন।

এখন Go Home এ ক্লিক করুন।

আপনার রকেট একাউন্ট এ বিনিময় রেজিস্ট্রেশন হয়ে গিয়েছে।

পরবর্তী পোস্ট এ দেখানো হবে বিনিময় এর মাধ্যমে বিকাশ টু রকেট এবং রকেট টু বিকাশ এ কি ভাবে লেনদেন করবেন.!

Related posts