অন্তঃক্ষরা ও বহিঃক্ষরা গ্রন্থি কাকে বলে?

অন্তঃক্ষরা ও বহিঃক্ষরা গ্রন্থি কাকে বলে?

অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি : নালীবিহীন যেসব গ্রন্থি থেকে হরমোন নিঃসৃত হয়ে রক্ত বা
লসিকার মাধ্যমে দেহের বিভিন্ন স্থানে প্রেরিত হয় ঐ সব গ্রন্থিকে অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি বলা হয়।
যেমন- থাইরয়েড গ্রন্থি, পিটুইটারি গ্রন্থি, আইলেটস অব ল্যাঙ্গারহান্স, অ‍্য‌া‌‍‍ডরেনাল গ্রন্থি,
হাইপোথ্যালামাস গ্রন্থি ইত্যাদি। অন্তঃক্ষরা গ্রন্থিতে কোন নালী থাকে না বিধায় এদের অনালী বা নালীবিহীন গ্রন্থিও বলা হয়।

বহিঃক্ষরা গ্রন্থি : যে সব গ্রন্থির নালী থাকে ও নিঃসারক রস নালীর মাধ্যমে রক্তে, লসিকায় বা বিভিন্ন অঙ্গে নিঃসৃত হয়, তাদের বহিঃক্ষরা গ্রন্থি বলে। যেমন- লালা গ্রন্থি, পেপটিক গ্রন্থি, যকৃৎ, আন্ত্রিকগ্রন্থি, অগ্ন্যাশয় গ্রন্থি ইত্যাদি।

বহিঃক্ষরা ও অন্তঃক্ষরা গ্রন্থির পার্থক্য কি?

Related posts

Leave a Comment