রসায়ন প্রশ্ন ও উত্তর (পর্ব-১)

প্রশ্ন-১. কম্পোজিট কণিকা কাকে বলে?
উত্তর : অতি পারমাণবিক কণিকা যা দুই বা ততোধিক মৌলিক কণিকা যেমন প্রোটন ও নিউট্রন দ্বারা যুক্ত হয়, তাকে কম্পোজিট কণিকা বলে।

প্রশ্ন-২. অ্যারিন কাকে বলে?
উত্তর : অ্যারোমেটিক হাইড্রোকার্বনকে অ্যারিন বলে।

প্রশ্ন-৩. LPG এর পূর্ণরূপ কি?
উত্তর : LPG এর পূর্ণরূপ হচ্ছে- Liquid Petroleum Gas.

প্রশ্ন-৪. অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন কাকে বলে? অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বনের উদাহরণ
উত্তর : যে সমস্ত হাইড্রোকার্বনে কার্বন-কার্বন দ্বিবন্ধন বা ত্রিবন্ধন থাকে তাদেরকে বলে।
উদাহরণ : ইথিন (CH2=CH2), ইথাইন প্রভৃতি।

প্রশ্ন-৫. সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন কাকে বলে?
উত্তর : যে সকল হাইড্রোকার্বনে কার্বন-কার্বন একক বন্ধন বিদ্যমান থাকে তাকে সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন বলে। যেমন– অ্যালকেন একটি সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন।

প্রশ্ন-৬. নিউক্লিওফাইল কি?
উত্তর : যেসব বিকারক বিক্রিয়াকালে নিউক্লিয়াসের প্রতি আকৃষ্ট হয় এবং ইলেকট্রন দান করে তাদেরকে কেন্দ্রাকর্ষী বিকারক বা নিউক্লিওফাইল বলে।

প্রশ্ন-৭. রেসিমিক মিশ্রণ কাকে বলে?
উত্তর : এনানসিওমার এর সমমোলার মিশ্রণকে রেসিমিক মিশ্রণ বলে।

প্রশ্ন-৮. আলোক সমাণুতা কাকে বলে?
উত্তর : আলোক সক্রিয় যৌগের একই আণবিক ও গাঠনিক সংকেত বিশিষ্ট দুটি কনফিগারেশনের একটি যদি সমবর্তিত আলোর তলকে ঘড়ির কাঁটার দিকে এবং অপরটি ঘড়ির কাঁটার বিপরীত দিকে আবর্তিত করে তাদেরকে আলোক সমাণু এবং এ বিষয়কে আলোক সমাণুতা বলে।

প্রশ্ন-৯. টেফলন কাকে বলে?
উত্তর : পলিটেট্রাফ্লোরো ইথেনকে টেফলন বলে।

প্রশ্ন-১০. অ্যালকেন এর ভৌত ধর্ম লিখ।
উত্তর : অ্যালকেনের কয়েকটি ভৌত ধর্ম নিচে তুলে ধরা হলোঃ

অ্যালকেনসমূহ বর্ণহীন ও প্রায় গন্ধহীন উদ্বায়ী যৌগ।
এরা পানিতে অদ্রবণীয়, তবে বিভিন্ন জৈব দ্রাবকে দ্রবণীয়।
তরল ও কঠিন অবস্থায় এরা পানি অপেক্ষা হালকা।

রসায়ন প্রশ্ন ও উত্তর (পর্ব-১)

প্রশ্ন-১১. নমুনা পানির বলতে কী বুঝ?
উত্তর : নমুনা পানির বলতে রাসায়নিক পানির বিশুদ্ধতা , COD, BOD ইত্যাদি পরীক্ষা নিরীক্ষা করার জন্য নমুনা হিসেবে যে পানি সংগ্রহ করা হয় । তাকে নমুনা পানি/বর্জ্য পানি বলে।

প্রশ্ন-১২. প্রতীক কী?
উত্তর : কোনো মৌলের ইংরেজি বা ল্যাটিন নামের সংক্ষিপ্তরূপকে প্রতীক বলে।

প্রশ্ন-১৩. পরমাণুতে কীভাবে বর্ণালি সৃষ্টি হয়?
উত্তর : ইলেকট্রন উচ্চ শক্তির স্তর থেকে নিম্নশক্তির স্তরে যাবার সময় যে আলো বিকিরণ করে তাকে প্রিজমের মধ্য দিয়ে প্রবেশ করালে পারমাণবিক বর্ণালী সৃষ্টি হয়।

প্রশ্ন-১৪. ম্যাগমা কী?
উত্তর : আগ্নেয়গিরি থেকে যে গলিত পদার্থসমূহের মিশ্রণ বের হয়,সেটি ম্যাগমা।

প্রশ্ন-১৫. বাত‍্যাচুল্লী কী?
উত্তর : আয়রন আকরিক থেকে আয়রন নিষ্কাশনের জন্য লম্বাকৃতির বিশেষ এক চুল্লীকে বার্তাচুল্লী বলা হয়।

প্রশ্ন-১৬. অ্যানালার পদার্থ শতকরা কত ভাগ বিশুদ্ধ?
উত্তর : অ্যানালার শতকরা 99%বিশুদ্ধ।

প্রশ্ন-১৭. যোজ্যতা ইলেকট্রন বলতে কী বুঝায়?
উত্তর : কোন মৌলের ইলেকট্রন বিন্যাসে সর্বশেষ কক্ষপথে যে কয়টি ইলেকট্রন থাকে তার সংখ্যাকে ওই মৌলের যোজ্যাতা ইলেকট্রন বা যোজনী ইলেকট্রন বলে। যেমন : ফ্লোরিনের ইলেকট্রন বিন্যাসে শেষ কক্ষপথ L এ 5 টি ইলেকট্রন আছে। অতএব ফ্লোরিনের যোজ্যাতা ইলেকট্রন আছে 5টি।

প্রশ্ন-১৮. ইমালশন কি?
উত্তর : ইমালশন হচ্ছে দুই বা ততোধিক তরল পদার্থের মিশ্রণ যেগুলো পরস্পর মিশ্রণীয় নয়। এগুলো দুই দশাবিশিষ্ট কোলয়েড জাতীয় পদার্থ। যেমন দুধ ,মাখন।

প্রশ্ন-১৯. সোডা অ্যাস কি?
উত্তর : শুষ্ক সোডিয়াম কার্বনেটকে সোডা অ্যাস বলা হয়। এর রাসায়নিক সংকেত Na2CO3।

প্রশ্ন-২০. IUPAC – এর পূর্ণরুপ কি?
উত্তর : IUPAC – এর পূর্ণরুপ হচ্ছে International Union of Pure and Applied Chemistry।

Related posts

Leave a Comment