বাংলাদেশে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানী কার্য সম্পাদন করে?

বাংলাদেশে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানী কার্য

বাংলাদেশে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানী কার্য সম্পাদন করে? (What activities are performed by the professional accountants of Bangladesh?)

বাংলাদেশে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীগণ যে সমস্ত কার্য সম্পাদন করে থাকেন তা সংক্ষেপে নিচে আলোচনা করা হলো:

১. হিসাবরক্ষণ (Bookkeeping): বাংলাদেশের বৃহদায়তন ব্যবসায়িক ও অব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান, সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান,
আধাসরকারি ও স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানের হিসাবরক্ষণের বাজ অনেক ক্ষেত্রে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীদের দ্বারা সম্পাদিত হয়ে থাকে।
এক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের হিসাবরক্ষণই তাদের প্রধান কাজ।

“আর পড়ুনঃ” হিসাববিজ্ঞানের ধারণা, প্রক্রিয়া এবং মান উন্নয়নের সাথে সংশ্লিষ্ট পক্ষসমূহ কী কী?

২. হিসাব পরীক্ষা বা নিরীক্ষা (Accounts auditing): আমাদের দেশে অধিকাংশ পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীগণই কোম্পানি ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের হিসাব পরীক্ষা
বা নিরীক্ষ কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। এই উদ্দেশ্যে এক বা একাধিক সম্পপ্রাপ্ত হিসাববিজ্ঞানী একটি ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেন এবং
উক্ত ফার্মের নামে হিসাব পরীক্ষা করে থাকেন।
কোন প্রতিষ্ঠানের যে চূড়ান্ত হিসাব ও উদ্বৃত্তপত্র প্রণীত হয় তার সত্যতা নিরূপণ করা এবং
সেই হিসাবে প্রতিষ্ঠানটির লাভ-ক্ষতির পরিমাণ ও সামগ্রিক আর্থিক অবস্থা যথাযথভাবে প্রদর্শিত হয়েছে কি না তা যাচাই করে ঐ হিসাব সংক্রান্ত রিপোর্ট পেশ করাই তাদের কাজ।

“আর পড়ুনঃ” হিসাবরক্ষণ ও হিসাববিজ্ঞানের মধ্যে পার্থক্য কী? JAIBB

৩. কর উপদেষ্টা (Tax adviser) আমাদের দেশে কোন কোন Chartered Accounts ফার্ম বা পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীগণ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের কর উপদেষ্টা হিসাবেও কাজ করে থাকেন।
এই ক্ষেত্রে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের কর হিসান প্রস্তুতকরণ, করদাতা নির্ণয়, তা সম্পর্কে উপদেশ দান প্রভৃতি কার্য তারা করেন।

৪. আর্থিক অবস্থা অনুসন্ধান (Researching of financial position): এই দেশের কোন কোন ক্ষেত্রে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের দুর্নীতি,
জালিয়াতি, আর্থিক দূরবস্থা ইত্যাদির অনুসন্ধান কার্য পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীদের উপর ন্যস্ত করতে দেখা যায়।

৫. প্রযু্ক্তির ব্যবহার (Lises of technology): উন্নত প্রযুক্তি ব্যতীত কোন দেশের উন্নতি সম্ভব নয়।
যে দেশ যত বেশি তথ্য ও প্রযুক্তিতে উন্নত সে দেশ তত বেশি উন্নত। অনেক প্রতিষ্ঠান পাবলিক হিসাববিজ্ঞানীর কাছ থেকে প্রযুক্তির ব্যবহার সম্পর্কে ধারণা গ্রহণ করে তা কার্যক্ষেত্রে প্রয়োগ করে।

বাংলাদেশে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানী কার্য সম্পাদন করে?

“আর পড়ুনঃ” মনিটারি ইউনিট Assumption কী? মুদ্রাস্ফীতি কিভাবে মনিটারি ইউনিট Assumption কে প্রভাবিত করে?

৬. শিল্প বিরোধ (Industrial conflict): শ্রমিক ও মালিকদের মধ্যে সর্বদাই বন্দু বা শিল্প বিরোধ লেগেই থাকে।
আর এই শিল্প বিরোধ নিষ্পত্তিতে প্রতিষ্ঠানগুলো শ্রম সংঘ বা আদালতের আশ্রয় নেয়।
কিছু প্রতিষ্ঠান শ্রম আদালত সরাসরি না গিয়ে কোন পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীকে নিয়োগ করে থাকে।
সুতরাং শিল্পবিরোধ নিষ্পত্তিতেও পেশাদার হিসাববিজ্ঞানী অন্যতম ভূমিকা রাখে।

৭. বাজেট তৈরি (Makeing budget) : প্রতিটি প্রতিষ্ঠান অতীত কর্মকাণ্ড ও অনুমানের উপর ভিত্তি করে কারবারের মুনাফা,
খরচ, বিক্রয়, মূলধন ইত্যাদি বিষয়ের সমন্বয়ে বাজেট প্রস্তুত করে।
এ পর্যায়ে প্রতিষ্ঠানগুলো পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীর পরামর্শ গ্রহণ করে থাকে।

“আর পড়ুনঃ” GAAP বলতে কি বুঝায়? আর্থিক বিবরণী তৈরিতে ইহা কিভাবে প্রভাব বিস্তার করে?

৮. উৎপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞান (Cast accounting): উৎপাদন ব্যয় সংক্রান্ত বিভিন্ন উৎপাদন ব্যয় হিসাবের কাজ করা,
তথ্য সংগ্রহ, নির্ণয় ও বিশ্লেষণ করা ইত্যাদি বিষয়ে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানী বিভিন্নভাবে সহায়তা দিয়ে থাকে।

৯. কোম্পানি গঠন (Company foundation): যৌথ মূলধনী কোম্পানি গঠনেও আমাদের দেশে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীদের নিয়োজিত করা হয়।
কোম্পানি গঠনে কতকগুলো গুরুত্বপূর্ণ দলিল প্রণয়নে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীগণ কোম্পানির প্রবর্তকগণকে সাহায্য করে থাকেন।

১০. কোম্পানির অবসারক (Company liquidator) : কোম্পানির অবসানকালেও এদেশে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীদেরকে অবসায়ক হিসাবে কাজ করতে দেখা যায়।

“আর পড়ুনঃ” হিসাববিজ্ঞানের উদ্দেশ্যসমূহ বর্ণনা করুন। JAIBB

১১. ব্যবস্থাপনা হিসাববিজ্ঞান প্রণয়ন (Preparation of management accounting) সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য কোম্পানির ব্যবস্থাপকদের বিভিন্ন আর্থিক বিবরণীর প্রয়োজন হয়।
এই সকল বিবরণী প্রস্তুত করার দায়িত্বও কোন কোন ক্ষেত্রে এদেশের পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীদের উপর অর্পণ করা হয়ে থাকে।

উপরিউক্ত কার্যাবলি ছাড়াও বাংলাদেশের পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীগণকে জিম্মাদার, আর্থিক বিবাদের সালিস,
কোম্পানির মূল্যায়ন প্রভৃতি কার্য সম্পাদনের জন্যও নিয়োজিত করা হয়।

Related posts