আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের সার্ভার কপি ডাউনলোড করুন একদল ফ্রি তে.!

জাতীয় পরিচয় পত্র (NID) হল বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য একটি বাধ্যতামূলক নথি.! যা বাংলাদেশের যেকোনো লোক এর ১৮ বছর বয়স হলে নথিভুক্ত হতে হয়। তথ্য নথিভুক্ত প্রতিষ্ঠান হল বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন!

জাতীয় পরিচয় পত্র (NID) আমাদের নানান ধরনের কাজে লাগে

১) নাগরিক অধিকার ও সুবিধা সমূহ
২) জাতীয় পরিচয়
৩) ড্রাইভিং লাইসেন্স
৪) মটর যান রেজিস্ট্রেশন
৫) পাসপোর্ট
৬) জমি ক্রয় ও বিক্রয়
৭) ব্যাংক হিসাব খুলতে
৮) ব্যাংক ঋণ নিতে
৯) টিন নাম্বার
১০) মোবাইল সিম পেতে
১১) সরকারি অনুদান ও ভাতা পেতে
১২) চাকরির আবেদন করতে

আরো নানা ধরনের কাজে লাগে এই জাতীয় পরিচয় পত্র (NID) আর এই জাতীয় পরিচয় পত্র মত জাতীয় পরিচয় পত্রের সার্ভার কপি বিভিন্ন কাজে লাগে বিশেষ কোনো চাকরি জন্য বা আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র হারিয়ে গেলে এই সার্ভার কপি সব ধরনের কাজ এ লাগে পারবেন। কিন্তু এই সার্ভার কপি নিতে লাগে ২১.৬৩ টাকা । আগে ২১.৬৩ টাকা বিকাশ, নগদ দিয়ে পে করতে হয় তার পর সার্ভার কপি ডাউনলোড করতে পারবেন। আছকে আমি দেখাবো কি ভাবে একদম ফ্রি তে এই সার্ভার কপি ডাউনলোড করবেন বা পাবেন।

তো শুরু করা যাক।

প্রথম এখানে ক্লিক করুন.!

তার পর ফ্রি একাউন্ট খুলন এখানে ক্লিক করুন।

তার পর নাগরিক এ ক্লিক করুন।

এখানে আপনি আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র বা জন্ম নিবন্ধন এর কাড দিয়ে একাউন্ট খুলতে পারবেন। যে টা আপনার সুবিধা হবে সে টা দিয়ে খুলবেন একাউন্ট।

তার পর আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র বা জন্ম নিবন্ধন এর নাম্বার এবং জন্ম তারিখ আর ফোন ✆ নাম্বার দিয়ে নিবন্ধন করুন এ ক্লিক করুন।

আপনার ফোনে একটা কোড যাবে তা এই box এ বসে দিয়ে জমা দিন এ ক্লিক করুন।

এখন লগইন এ ক্লিক করুন

একাউন্ট খুলার সময় যে ফোন নাম্বার দিয়েছেন সে ফোন নাম্বার আর ৬ সংখ্যা যে কোড গিয়েছে তা এখানে বসে দিয়ে লগইন করুন।

এখন জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য প্রিন্ট এখানে ক্লিক করুন।

তার পর আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার চাইলে নাম্বার দিবে এবং আপনার জন্ম তারিখ দিয়ে প্রিন্ট করুন এ ক্লিক করুন।

এখন পরিশোধ করুন এ ক্লিক করুন।

এখন × এখানে ক্লিক করুন.!

এখন প্রিন্ট করুন এ ক্লিক করুন।

তার পর ডাউনলোড অপশন আসবে ডাউনলোড করে নিবেন।

প্রমাণঃ

বিঃদ্রঃ এই ফ্রি সিস্টেমটি যেকোনো সময় বন্ধ হয়ে যেতে পারে.?

Related posts