২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণীর ভর্তি আবেদনের নীতিমালা দেখে নিন.!

২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষ, একাদশ শ্রেণির ভর্তির চূড়ান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে শিক্ষা বোর্ড আছকে.! আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) থেকে একাদশ শ্রেণিতে প্রথম পর্যায়ের ভর্তির আবেদন শুরু হবে এবং প্রথম পর্যায়ের আবেদন শেষ হবে আগামী ১৫ ডিসেম্বর আর ৩১ ডিসেম্বর প্রথম পর্যায়ের আবেদনকারী শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে।

অন্যান্য বছরের মত এবারও তিন দফায় ভর্তির আবেদন গ্রহণ করে একাদশে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হবে। এই তিন দফা ভর্তির আবেদন করার পরেও যদি কোন শিক্ষার্থী আবেদন করা থেকে বাদ যায় বা বাদ পড়ে তাহলে বিশেষ বিবেচনায় আর এক দফায় আবেদন করার সুযোগ দেয়া হবে.!

অনলাইন এ আবেদন ছাড়া সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ম্যানুয়ালি ভর্তির আবেদন নেয়া হবে না। আগামী ২২ থেকে ২৬ জানুয়ারি কলেজ পর্যায়ে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে। এই নির্দৃষ্ট সময়ের মধ্যে নির্বাচিত কলেজে গিয়ে কাগজ পত্র জমা দিয়ে ভর্তি হতে হবে.!

১ ফেব্রুয়ারি একাদশ শ্রেণীর ক্লাস শুরু হবে.!

আবেদন :

একাদশ শ্রেণি ভর্তির জন্য নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে শুধু মাত্র আবেদন করা যাবে (www.xiclassadmission.gov.bd) অনলাইন ছাড়া সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ম্যানুয়ালি ভর্তির আবেদন নেয়া হবে না।

আবেদন ফি :

শিক্ষার্থীদের আবেদন ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫০ টাকা। ১৫০ টাকা আবেদন ফি দিয়ে সর্বনিম্ন পাঁচটি এবং সর্বোচ্চ দশটি কলেজে পছন্দ দিতে হবে। একজন শিক্ষার্থী যতগুলো কলেজে আবেদন করবে তার মধ্য থেকে তার মেধা, কোটা ও পছন্দক্রমের ভিত্তিতে একটি মাত্র কলেজে তার অবস্থান নির্ধারণ করা হবে। নির্বাচিত শিক্ষার্থী ৩২৮ টাকা দিয়ে ভর্তির প্রাথমিক নিশ্চায়ন করতে হবে।

তিন ধাপে আবেদন ও ফল প্রকাশ :

প্রথম পর্যায়ের আবেদন : প্রথম পর্যায়ের আবেদন শুরু হবে ৮ ডিসেম্বর থেকে এবং চলবে ১৫ ডিসেম্বর রাত ১১-৫৯ মিনিট পর্যন্ত। পুনঃনিরীক্ষার ফল পরিবর্তিত শিক্ষার্থীদের আবেদন গ্রহণ হবে ২৬ ডিসেম্বর। একই দিন আবেদন করা শিক্ষার্থীরা পছন্দক্রম পরিবর্তনের সময় পাবেন।

প্রথম পর্যায়ের আবেদনের ফলাফল : ৩১ ডিসেম্বর প্রথম পর্যায়ের নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে। ফলাফল ফোনে এসএমএস মাধ্যমে জানিয়ে দিয়া হবে এবং নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা যাবে।

প্রথম পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নির্বাচন নিশ্চায়ন : ১ জানুয়ারি থেকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রথম পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফি জমা দিতে হবে মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে। শিক্ষার্থীরা নিশ্চায়ন না করলে প্রথম পর্যায়ের নির্বাচন ও আবেদন বাতিল হবে। তাকে পুনরায় ফিসহ আবেদন করতে হবে।

দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদন : ৯ জানুয়ারি থেকে ১০ জানুয়ারি ১১-৫৯ মিনিট পর্যন্ত দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হবে।

দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদনের ফলাফল : ১২ জানুয়ারি দ্বিতীয় পর্যায়ের নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে।

দ্বিতীয় পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নির্বাচন নিশ্চায়ন : ১৩ জানুয়ারি থেকে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে

তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন : শুধু মাত্র ১৬ জানুয়ারি তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হবে!

তৃতীয় পর্যায়ের আবেদনের ফলাফল : ১৮ জানুয়ারি প্রকাশ করা হবে।

তৃতীয় পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নির্বাচন নিশ্চায়ন : ১৯ জানুয়ারি থেকে ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত.!

ভর্তি ও ক্লাস শুরু:

২২ জানুয়ারি থেকে ২৬ জানুয়ারি একাদশ শ্রেণিতে কলেজ পর্যায়ে ভর্তি চলবে। ১ ফেব্রুয়ারি থেকে একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে।

গ্রুপ নির্বাচন যেভাবে :

বিজ্ঞান গ্রুপ থেকে এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা উচ্চমাধ্যমিকে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোনো একটি নির্বাচন করতে পারবেন। মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণরা এ দুই গ্রুপের যেকোনো একটি নির্বাচন করতে পারবেন। দাখিল উত্তীর্ণ বিজ্ঞান গ্রুপের শিক্ষার্থীরা বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোনো একটি ও সাধারণ গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোনো একটি নির্বাচন করতে পারবেন।

কলেজে ভর্তি ফি :

ঢাকা মেট্রোপলিটনের এমপিওভুক্ত কলেজে বাংলা ও ইংরেজি ভার্সনে সর্বোচ্চ ভর্তি ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ হাজার টাকা। ঢাকা ছাড়া অন্যান্য মেট্রোপলিটন এলাকায় বাংলা ও ইংরেজি ভার্সনের কলেজে ভর্তির ফি হবে ৩ হাজার টাকা। জেলা পর্যায়ের কলেজে দুই ভার্সনের ভর্তির ফি ২ হাজার ও উপজেলা পর্যায়ের কলেজে দুই ভার্সনে ভর্তির ফি ১ হাজার ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ননএমপিও বা আংশিক এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে উন্নয়ন ফি, সেশন চার্জ ও ভর্তি ফি ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার কলেজের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৭ হাজার ৫০০ টাকা। ঢাকা ছাড়া অন্যান্য মেট্রোপলিটন এলাকার ননএমপিও কলেজে বাংলা ভার্সনে ভর্তির জন্য ৫ হাজার টাকা ও ইংরেজি ভার্সনে ভর্তির জন্য ৬ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। জেলা পর্যায়ের কলেজের বাংলা ভার্সনে ৩ হাজার টাকা ও ইংরেজি ভার্সনে ৪ হাজার টাকা ভর্তি ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। আর উপজেলা পর্যায়ের কলেজে বাংলা ভার্সনে ২ হাজার ৫০০ টাকা ও ইংরেজি ভার্সনে ৩ হাজার টাকা ভর্তি ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

 

ভর্তির বিজ্ঞপ্তি ও নীতিমালা ডাউনলোড করুন

 

Related posts