ক্রিয়ার কাল কাকে বলে? ক্রিয়ার কাল কত প্রকার ও কি কি?

ক্রিয়ার কাল কাকে বলে? ক্রিয়ার কাল কত প্রকার ও কি কি?

কাল অর্থ সময়। ক্রিয়াপদ যে সময়ের মধ্যে সম্পন্ন হয়, সেই সময়টাকেই কাল বলা হয়। অর্থাৎ ক্রিয়া সম্পাদনের সময়কে ক্রিয়ার কাল বলে। যেমন— আমি ভাত খাই। আমি ভাত খেয়েছিলাম। আমি ভাত খাব।

ক্রিয়ার কালের প্রকারভেদ
ক. বর্তমান কাল
খ. অতীত কাল
গ. ভবিষ্যৎ কাল

ক. বর্তমান কাল: যে ক্রিয়া বর্তমানে সম্পন্ন হয়, তার কালকে বর্তমান কাল বলে। যেমন— আমি বই পড়ি। সে ভাত খায়। এখানে পড়ার কাজ ও খাওয়ার কাজ বর্তমানে সম্পন্ন হচ্ছে। তাই ‘পড়ি’ ও ‘খায়’ ক্রিয়া দুটির কাল বর্তমান।

খ. অতীত কাল: যে ক্রিয়া অতীতে সম্পন্ন হয়েছিল, তার কালকে অতীত কাল বলে। যেমন- আমি বই পড়েছিলাম। সে ভাত খেয়েছিল। এখানে পড়ার কাজ ও খাওয়ার কাজ অতীতে কোন এক সময় সম্পন্ন হয়েছিল। তাই ‘পড়েছিল’ ও ‘খেয়েছিল’ ক্রিয়া দুটির কাল অতীত।

গ. ভবিষ্যৎ কাল: যে ক্রিয়া ভবিষ্যতে সম্পন্ন হবে, তার কালকে ভবিষ্যৎ কাল বলে। যেমন- আমি বই পড়ব। সে ভাত খাবে। এখানে পড়ার কাজ ও খাওয়ার কাজ ভবিষ্যতে সম্পন্ন হবে। তাই ‘পড়ব’ ও ‘খাব’ ক্রিয়া দুটির কাল ভবিষ্যৎ।

এখানে যা শিখলাম–
ক্রিয়ার কাল কাকে বলে?; ক্রিয়ার কালের উদাহরণ; ক্রিয়ার কাল কত প্রকার ও কি কি?; বর্তমান কাল কাকে বলে?; অতীত কাল কাকে বলে?; ভবিষ্যৎ কাল কাকে বলে?;

Related posts

Leave a Comment